বুধবার, ০৬ Jul ২০২২, ১২:২৭ অপরাহ্ন

সিলেটে মসজিদে ঢুকে যুবককে হত্যার চেষ্টা

সিলেটে মসজিদে ঢুকে যুবককে হত্যার চেষ্টা

sylhetlive24.com


গোয়াইনঘাট প্রতিনিধি

সিলেটের গোয়াইনঘাটের ৩ নং পূর্ব জাফলং ইউনিয়নের কান্দুবস্তি গ্রামে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ কেটে চুরি করে বাঁধের মাটি বিক্রির দৃশ্য বৃহস্পতিবার সকালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেয়ায় এক যুবককে প্রাণে হত্যার উদ্দেশ্যে মসজিদে ঢুকে হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এসময় তার সাথে থাকা ৬২হাজার ৮ শত টাকাও ছিনিয়ে নিয়ে গেছে।

খবর পেয়ে থানা অফিসার ইনচার্জের নির্দেশে তাৎক্ষনিক থানার এসআই লিটন রায়, এএসআই দিবাস দাস, এএস,আই মারুফ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কান্দুবস্তি মসজিদ থেকে অবরুদ্ধ অবস্থায় থাকা আহত যুবক সোহেল আহমদকে উদ্ধার করেন। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৫ টায় বাদ আসর কান্দুবস্তি জামে মসজিদে এ ঘটনা ঘটে। আহত যুবকের নাম সোহেল আহমদকে উদ্ধার করে গোয়াইনঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় আহত সোহেল আহমদ বাদী হয়ে গোয়াইনঘাট থানায় জড়িতদের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

জানা যায় গোয়াইনঘাট উপজেলার ৩নং পূর্ব জাফলং ইউনিয়নের কান্দুবস্তি গ্রামের মৃত মফাজ্জল আলীর ছেলে একাধিক ঘটনায় বিতর্কিত গ্রামের ফরাজ মিয়া ওরফে বাট্টো ফরাজ মিয়ার সাথে একই গ্রামের মৃত খসরুল মিয়ার ছেলে সোহেল আহমদের সাথে কান্দুবস্তি গ্রাম রক্ষা বাঁধ থেকে চুরি করে মাটি বিক্রির ঘটনা ফেসবুকে দেয়ার ঘটনায় বৃহস্পতিবার দুপুরে কথা-কাটাকাটি ও হুমকি ধামকির ঘটনা ঘটে। বিষয়টি তাৎক্ষণিক সোহেল আহমদ মৌখিক ভাবে গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবদুল আহাদকে অবহিত করেন।

পরে তিনি এ ব্যাপারে বিহীত পদক্ষেপ নিতে এএসআই মারুফকে নির্দেশ দেন। বিষয়টি তদন্তে যাওয়ার আগেই আসরের নামাযের জন্য কান্দুবস্তি জামে মসজিদে প্রবেশ করার সময় ফরাজ মিয়ার ভাতিজা তানভির আহমদ, নজির আহমদ, হোসেন আহমদ, নাফি মিয়া, ফরাজ মিয়া, তার ভাই শামসুদ্দিন, ফরাজের ছেলে ইমরান আহমদ, মারুফ আহমদ, পাবেল আহমদ, নাহিদ আহমদ, তোফায়েল আহমদসহ আরও অজ্ঞাতনামা ১০-১২ জন সন্ত্রাসী প্রতিবাদী যুবক সোহেল আহমদের উপর মসজিদ অভ্যন্তরে অতর্কিত হামলা চালায়।

এসময় নিজের জীবন রক্ষায় সোহেল আহমদ কান্দুবস্তি জামে মসজিদের ভেতরে প্রবেশ করলে সেখানেও তার উপর হামলার ঘটনা ঘটে।

এ সময় তাকে এলোপাতাড়ি মারপিট করে মারাত্মকভাবে আহত করে তার সাথে থাকা ৬২হাজার ৮ শত টাকাও লুটে নেয় সন্ত্রাসীরা।

খবর পেয়ে থানা অফিসার ইনচার্জের নির্দেশে তাৎক্ষনিক থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কান্দুবস্তি মসজিদ থেকে অবরুদ্ধ অবস্থায় থাকা আহত যুবক সোহেল আহমদকে উদ্ধার করে গোয়াইনঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

সোহেল আহমদের উপর হামলার ঘটনাটি গ্রামের বাসিন্দাদের পাশাপাশি পুলিশ সদস্যরাও সত্যতা পান।

এ ব্যাপারে গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবদুল আহাদ বলেন, বিষয়টি জেনে তাৎক্ষণিক পুলিশ অফিসারগণদের পাঠিয়ে সোহেলকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে, তদন্ত চলছে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।






© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY Web Nest BD
ThemesBazar-Jowfhowo