শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০৪:৩৬ পূর্বাহ্ন

সিলেটে বিদ্যুৎ বিভ্রাট : তীব্র গরমে দুর্ভোগে নগরীর কয়েক হাজার মানুষ

সিলেটে বিদ্যুৎ বিভ্রাট : তীব্র গরমে দুর্ভোগে নগরীর কয়েক হাজার মানুষ

sylhetlive24.com/সিলেট লাইভ


বিশেষ প্রতিবেদক

এক সপ্তাহ পার হতে না হতেই কুমারগাঁও বিদ্যুৎ কেন্দ্রে আবারো বিদ্যুৎ বিভ্রাটে চরম ভোগান্তির শিকার হয়েছেন সিলেট নগরীর কয়েক হাজার মানুষ। গত বুধবার মাগরিবের নামাজের পর থেকে কুমারগাঁও বিদ্যুৎ কেন্দ্রে ফের ত্রুটি দেখা দেয়ায় বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিউবো) বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-১ এর আওতাধীন এলাকায় অন্ধকার নেমে আসে।

বিউবো সিলেট অঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী মো. আব্দুল কাদির কুমারগাঁও বিদ্যুৎ কেন্দ্রে ত্রুটির বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, অতিরিক্ত চাপের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। তবে, গতকাল রাত পৌনে ১০টার আগেই বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হয়েছে বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।

এদিকে, বুধবার এবং বৃহস্পতিবার তীব্র গরম ও ঘণ্টার পর ঘণ্টা বিদ্যুৎ না থাকায় লোকজন পড়েন বিপাকে। বিউবো বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-১ এর আওতাধীন নগরীর গুরুত্বপূর্ণ বন্দরবাজার, জিন্দাবাজার, আম্বরখানা, দর্শনদেউড়ি, পায়রা, সুবিদবাজার, হাউজিং এস্টেট, বড়বাজার, রিকাবী বাজার ইত্যাদি এলাকায় বিদ্যুৎ না থাকায় জনজীবনে নেমে আসে দুর্ভোগ।

বিশেষ করে নগরীর ব্যবসায়িক প্রাণকেন্দ্র বন্দরবাজার ও আশপাশ এলাকায় বিদ্যুৎ না থাকায় বিভিন্ন মার্কেট ও বিপণীবিতানে বিকল্প উপায়ে বিদ্যুৎ সঞ্চালন করা হয়। রাত ১০টার দিকে পুনরায় বিদ্যুৎ সঞ্চালন হলে জনজীবনে স্বস্তি নেমে আসে।

এ ব্যাপারে বিউবো বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী ফজলুল করিম জানান, হঠাৎ করে কুমারগাঁও বিদ্যুৎ কেন্দ্রে ত্রুটি দেখা দেয়ায় অধিকাংশ এলাকা বিদ্যুৎবিহীন হয়ে পড়ে। সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় দ্রুত ত্রুটি সারিয়ে বিদ্যুৎ সঞ্চালন স্বাভাবিক অবস্থায় আনা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

এদিকে, কুমারগাঁও ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপকেন্দ্রের ৩৩ কেভি টি-১ ইনকামিংয়ের জরুরি মেরামত ও সংরক্ষণ কাজের জন্য সিলেটে শনিবার নগরীর ৬৬টি এলাকায় ৩ ঘন্টা বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ থাকবে। শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সিলেটের এসব এলাকায় সকাল ৭টা থেকে ১০টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ থাকবে না। বৃহস্পতিবার সিলেটের বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিউবো) বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-২ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

এলাকাগুলো হলো- ৩৩/১১ কেভি উপশহর উপকেন্দ্রের ফিডারের আওতাধীন উপশহর, তেররতন, শিবগঞ্জ, সেনপাড়া, টিলাগড়, লামাপাড়া, সবুজবাগ, হাতিমবাগ, রাজপাড়া, নাইওরপুল, ধোপাদিঘীরপাড়, সোবহানীঘাট, হাফিজ কমপ্লেক্স, যতরপুর, মিরাবাজার, আগপাড়া, ঝেরঝেরীপাড়া, চালিবন্দর, পুলিশ কমিশনার অফিস, নির্বাচন কমিশন অফিস, কাস্টঘর, হকার্স মাকেট, কালীঘাট, মহাজনপট্রি, বটেরতল, মাছিমপুর, ছড়ারপার, সোনারপাড়া, মজুমদারপাড়া, দর্জিপাড়া, খারপাড়া, মীরাপাড়া, শাপলাবাগ, মুক্তিরচক, কল্যানপুর, টুলটিকর, মিরেরচক, মুরাদপুর, পীরেরচক, মেন্দিবাগ, কুশিঘাট, শাহপরাণ থানা, সাদাটিকর, সোনাপুর, নয়াবস্তি ও তৎসংলগ্ন এলাকাসমূহ। এবং ৩৩/১১ কেভি এমসি কলেজ উপকেন্দ্রের ফিডারের আওতাধীন টিবি হাসপাতাল, মিতালিটিলা, খরাদিপাড়া, রাজবাড়ী, দর্জিপাড়া, নাইওরপুল, চারাদিঘীরপাড় আরামবাগ, দুর্গাবাড়ী, বালুচর পয়েন্ট, উত্তর বালুচর, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, কাজীটুলা, মিরবক্সটুলা, জিন্দাবাজার, হাওয়াপাড়া, বারুতখানা, কুমারপাড়া, নয়াসড়ক, জেলরোড ও তৎসংলগ্ন এলাকাসমূহ।

উল্লেখ্য, গত ৮ সেপ্টেম্বর কুমারগাঁও বিদ্যুৎ কেন্দ্রে ত্রুটি দেখা দেয়ায় বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছিল নগরীর অধিকাংশ এলাকা। সে সময়ও লোকজনকে পোহাতে হয়েছে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ।






© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY SYLHET-LIVE-24
ThemesBazar-Jowfhowo