সোমবার, ০৪ Jul ২০২২, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন

সিলেটে বিএনপি নেতা লাঞ্ছিত : ডিম নিক্ষেপ, সভাকক্ষে হুলুস্থুল

সিলেটে বিএনপি নেতা লাঞ্ছিত : ডিম নিক্ষেপ, সভাকক্ষে হুলুস্থুল

sylhetlive24.com/সিলেট লাইভ


নিজস্ব প্রতিবেদক

সিলেট জেলা বিএনপির ইফতার সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হলেও মহানগর বিএনপির ইফতার আয়োজন অতিথি নিয়ে ঘটলো তুলকালাম কাণ্ড। এক পক্ষের হাতে নির্যাতিত ও লাঞ্ছিত হতে হল মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এমদাদ হোসেন চৌধুরীকে। প্রতিপক্ষ দলীয় আম্বরখানা ও চৌখিদেখি এলাকা থেকে আসা নেতাকর্মীরা সভাকক্ষে তার উপর ডিম নিক্ষেপ করে। শুরু হয় হুলুস্থুল। এমনকি হেনস্তা করে বাইরে নিয়ে এসে। পরে মারধর ও কাপড় ছেঁড়ার মতো ঘটনাও ঘটে। এ ঘটনায় এমদাদ চৌধুরী আহত হয়েছেন। পরে রাতে দলের নেতা কর্মীরা তাকে দেখতে তার চৌকিদেখিস্থ বাসায় যান।

ঘটনা বুধবার মধ্যরাতের। নগরীর ভাতালিয়াস্থ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকীর বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, গত কয়েকদিন ধরেই মহানগর বি্এনপির ইফতার মাহফিলে অতিথি করা নিয়ে ক্ষোভ ও অসন্তোষ দানা বাধে। একটি পক্ষ বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদিরকে অতিথি করতে মরিয়ে হয়ে ওঠেন। আর লন্ডন থেকে নির্দেশনা রয়েছে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী ইকবাল মাহমুদ টুকুকে প্রধান অতিথি করার। কিন্তু এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধাচারণ করেন মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ফরহাদ চৌধুরী শামীম, স্বেচ্ছাসেবক দল কেন্দ্রীয় কমিটির সহ শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক কামাল হাসান জুয়েল, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক আব্দুল ওয়াহিদ সোহেল ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক আব্দুল আহাদ খান জামালসহ তাদের বলয়ের নেতাকর্মীরা।

এ সময় তাদের মতের বিরোধীতার করেন মহানগর যুগ্ম আহ্বায়ক এমদাদ চৌধুরী।

পরে বুধবার রাতে ইফতার মাহফিলে অতিথি নিয়ে রাতে মহানগর বিএনপির আহবায়ক আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকীর বাসায় বৈঠক বসে। ওই বৈঠক চলাকালে রাত ১২টার দিকে আম্বরখানা চৌকিদেখির একটি গ্রুপের নেতাকর্মীরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সভা কক্ষে এমদাদ হোসেন চৌধুরীর উপর ডিম নিক্ষেপ করেন। তার উপর ছুঁড়া ডিম অন্যদের উপরও পড়ে কাপড় নষ্ট হয়। এরপর হামলাকারীরা এমদাদ চৌধুরীকে নেতৃবৃন্দের সামনে দিয়ে টেনে হিঁচড়ে বাইরে বের করে মারধর করে।

এ ঘটনায় উপস্থিত অনেকে নেতারা বেরিয়ে এসে ক্ষোভ প্রকাশ করলেও মারধরের সময় ভয়ে কেউই প্রতিবাদ করতে যাননি।

অপর একটি সূত্র জানায়, স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী ইকবাল মাহমুদ টুকুকে ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি করা হলে খন্দকার আব্দুল মুক্তাদিরের অবস্থান নীচে নেমে আসবে। যে কারণে তার পক্ষ হয়ে ফরহাদ চৌধুরী শামিমসহ নেতাকর্মীরা বিরোধীতা করেন।

এ বিষয়ে লাঞ্ছিত মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এমদাদ চৌধুরীর মোবাইলে একাধিকবার ফোন করলেও বন্ধ পাওয়া যায়। যেকারনে তার প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি।






© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY Web Nest BD
ThemesBazar-Jowfhowo