রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:০৩ পূর্বাহ্ন

সরকারি নির্দেশনা :
করোনা ভাইরাস সংক্রমন রোধে মাস্ক পরুন, নিরাপদ থাকুন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। নিজে বাঁচুন এবং পরিবারকে সুস্থ রাখুন। সৌজন্যে : SylhetLive24.com
আজকের গুরুত্বপূর্ণ যত খবর
গোলাপগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনা, দাদা-নাতি নিহত রোববার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য সুনামগঞ্জ-ঢাকা বাস চলাচল বন্ধ সিলেটে বিদ্যুৎ বিভ্রাট : তীব্র গরমে দুর্ভোগে নগরীর কয়েক হাজার মানুষ সিসিকের ৮৩৯ কোটি টাকার বাজেট পেশ আশায় বুক বাঁধছেন হাফিজুল, পাশে দাঁড়াচ্ছেন হৃদয়বানরা শনিবার সিলেটের যেসব এলাকায় বিদ্যুৎ থাকবে না পুলিশ এসল্ট মামলায় ছাত্রনেতা সুহেল কারাগারে সিলেটে সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিক দিপনকে হুমকি বালুচরে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় মামলা, আসামীরা অধরা সিলেটে ৮ ভূয়া সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা সিলেটে আবাসিক হোটেলে ফুর্তি, ধরা পড়লেন ১০ নারী-পুরুষ টিলাগাঁওয়ে পুলিশের অভিযান : ৪ জুয়াড়ি আটক ৭ দিনের মধ্যে অনিবন্ধিত সব অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ সিলেটে বিদ্যালয়ের মাঠে গ্রাসরুটস’র মেলা, বিপাকে কর্তৃপক্ষ জাফলংয়ে চলছে বালু লুটের মহোৎসব : নেপথ্যে জামাই সুমন চক্র সিলেটে চাঞ্চল্যকর শিশু ধর্ষণ মামলার আসামী মিলাদ গ্রেফতার সিলেট জেলা ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সব কমিটি বিলুপ্ত ঘোষনা র‍্যাবের হাতে সেই ধর্ষক মিলাদ আটক ইউএসএ ছাত্রদল নেতা কয়েছকে বিদায় সংবর্ধনা অজি মো. কাওছারের পাশে লক্ষণাবন্দ ইউনিয়ন জাতীয়তাবাদী পরিবার
সিলেটে পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ভুল রিপোর্টে এক প্রসূতির ভোগান্তি

সিলেটে পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ভুল রিপোর্টে এক প্রসূতির ভোগান্তি

sylhetlive24.com

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট লাইভ ডেস্ক :: সিলেটে পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আলট্রাসনোগ্রাম রিপোর্টে মায়ের গর্ভে দুইটি সন্তানের অস্তিত্ব রয়েছে, সে অনুযায়ী অপারেশনের প্রস্তুতিও নিয়েছিলেন চিকিৎসক। রক্ত সংগ্রহ থেকে নিয়ে সবকিছু দুটি সন্তান গ্রহণের জন্যও প্রস্তুতি নিয়েছিলেন স্বজনরা। তবে অপারেশনের পর জানা গেল দুজন নয়, মায়ের গর্ভে মূলত রয়েছে একটি সন্তান। এরপর শুরু হয় রোগীর স্বজন ও ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি।

সোমবার দুপুরে সিলেট নগরীর কাজলশাহ এলাকার আল রাইয়্যান হাসপাতালে ঘটনাটি ঘটে। তবে, ডায়াগনস্টিক সেন্টারের রিপোর্টটি ছিলো-সিলেট নগরীর কাজলশাহের পপুলার মেডিকেল সেন্টার লিমিটেডের। এ নিয়ে চরম বিভ্রান্তিতে পড়েছে ঝরণা বেগম নামের ওই প্রসূতি মায়ের পরিবার। তার বাড়ি সিলেট সদর উপজেলার মোগলগাও ইউনিয়নের মীরেরগাওয়ে। তিনি সৌদি প্রবাসী সদর উদ্দিনের স্ত্রী।

ঝরনা বেগমের স্বামী সদর উদ্দিন বর্তমানে দেশে অবস্থান করছেন। তিনি অভিযোগ করেন, তার স্ত্রী সন্তান সম্ভবা হওয়ার পর থেকে একাধিকবার আল্ট্রাসনোগ্রাম করান। ঝরনার গর্ভে একজন সন্তান রয়েছে বলে এতে সনাক্ত হয়।

সোমবার সন্তান প্রসবের সময় ঘনিয়ে এলে তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সকাল ৯টার দিকে হাসপাতাল থেকে একটি আল্ট্রাসনোগ্রাম করার জন্য কাগজে লিখে দিলে ঝরনা বেগমের স্বজনরা নগরীর কাজলশাহের পপুলার মেডিকেল সেন্টারে তাকে নিয়ে আসেন। সেখান থেকে দুপুর ১২টায় একটি আল্ট্রাসনোগ্রা রিপোর্ট ডেলিভারী দিলে তাতে মায়ের পেটে ২ জন সন্তান রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। এতে চরম দুশ্চিন্তায় পড়েন স্বজনরা। এরপর ঝরনা বেগমকে ওসমানীতে না নিয়ে দ্রুত পার্শ্ববর্তী আল রাইয়ান হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তাৎক্ষনিকভাবে ওসমানী হাসপাতালের আবাসিক সার্জন ডাঃ ফাহমিনা আক্তার ফাহমিকে কল করা হলে তিনি এসে অপারেশনের প্রস্তুতি নেন। কিন্তু, অপারেশনের পর দেখা যায় সন্তান দুটি নয়, একটি। এসময় আমরা আরো একটি সন্তান কোথায় জানতে চাইলে চিকিৎসকসহ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, পপুলারের দেয়া রিপোর্টটি ভুল।

ওসমানী হাসপাতালের আবাসিক সার্জন ডাঃ ফাহমিনা আক্তার ফাহমি সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, রোগীর সাথে আগের এবং সর্বশেষ তিনটি আল্ট্রাসনোগ্রাম রিপোর্ট ছিলো। আমরা সর্বশেষ রিপোর্ট দেখেই প্রস্তুতি নেই। তবে বাস্তবে ঝরনা বেগমের গর্ভে একটি কন্যা সন্তানই পাই। তিনি বলেন, আল্ট্রাসনোগ্রাম রিপোর্টটি ভুল হতে পারে। তবে আমরা একটি সন্তানই পেয়েছি। এর বাইরে কিছুই জানি না।

সদর উদ্দিন অভিযোগ করেন, পপুলারের একটি ভুল রিপোর্টের জন্য আমরা চরম বিভ্রান্তিতে পড়েছিলাম। আমরা চাই আর যেন কেউ এমন পরিস্থিতিতে না পড়ে। আমরা এই বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে অভিযোগ করবো।

তিনি জানান, আল্ট্রাসনোগ্রাম রিপোর্টে পপুলারের ডাঃ নিরুপমা দাশ নামন নামের জনৈক চিকিসকের স্বাক্ষর রয়েছে।

এ ব্যাপারে পপুলার মেডিকেল সেন্টার লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডাঃ সায়েক আজিজ চৌধুরীর যোগাযোগ করা হলে ফোন রিসিভ করে তার সহকারী জানান, তিনি অপারেশন থিয়েটারে রয়েছেন। অবশ্য পপুলারের ম্যানেজার চন্দন আচার্য্য সংবাদ মাধ্যমকে জানান, অনেক সময় ভুলত্রুটি হয়ে যায়। কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে তারা সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান তিনি।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY Web-NEST- BD
ThemesBazar-Jowfhowo