রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৪৮ পূর্বাহ্ন

সরকারি নির্দেশনা :
করোনা ভাইরাস সংক্রমন রোধে মাস্ক পরুন, নিরাপদ থাকুন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। নিজে বাঁচুন এবং পরিবারকে সুস্থ রাখুন। সৌজন্যে : SylhetLive24.com
আজকের গুরুত্বপূর্ণ যত খবর
গোলাপগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনা, দাদা-নাতি নিহত রোববার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য সুনামগঞ্জ-ঢাকা বাস চলাচল বন্ধ সিলেটে বিদ্যুৎ বিভ্রাট : তীব্র গরমে দুর্ভোগে নগরীর কয়েক হাজার মানুষ সিসিকের ৮৩৯ কোটি টাকার বাজেট পেশ আশায় বুক বাঁধছেন হাফিজুল, পাশে দাঁড়াচ্ছেন হৃদয়বানরা শনিবার সিলেটের যেসব এলাকায় বিদ্যুৎ থাকবে না পুলিশ এসল্ট মামলায় ছাত্রনেতা সুহেল কারাগারে সিলেটে সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিক দিপনকে হুমকি বালুচরে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় মামলা, আসামীরা অধরা সিলেটে ৮ ভূয়া সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা সিলেটে আবাসিক হোটেলে ফুর্তি, ধরা পড়লেন ১০ নারী-পুরুষ টিলাগাঁওয়ে পুলিশের অভিযান : ৪ জুয়াড়ি আটক ৭ দিনের মধ্যে অনিবন্ধিত সব অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ সিলেটে বিদ্যালয়ের মাঠে গ্রাসরুটস’র মেলা, বিপাকে কর্তৃপক্ষ জাফলংয়ে চলছে বালু লুটের মহোৎসব : নেপথ্যে জামাই সুমন চক্র সিলেটে চাঞ্চল্যকর শিশু ধর্ষণ মামলার আসামী মিলাদ গ্রেফতার সিলেট জেলা ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সব কমিটি বিলুপ্ত ঘোষনা র‍্যাবের হাতে সেই ধর্ষক মিলাদ আটক ইউএসএ ছাত্রদল নেতা কয়েছকে বিদায় সংবর্ধনা অজি মো. কাওছারের পাশে লক্ষণাবন্দ ইউনিয়ন জাতীয়তাবাদী পরিবার
সিলেটে ডেঙ্গুজ্বর প্রতিরোধে উদ্যোগ নেই সিসিকের

সিলেটে ডেঙ্গুজ্বর প্রতিরোধে উদ্যোগ নেই সিসিকের

sylhetlive24.com/সিলেট লাইভ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিবেদক
করোনা মহামারিতে সিলেটবাসীর মধ্যে নতুন এক উৎকন্ঠার বার্তা নিয়ে এসেছে ডেঙ্গুজ্বর। ঢাকার হাসপাতালগুলোতে প্রতিদিন ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত রোগী বাড়ার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু। এ পরিস্থিতিতে ডেঙ্গু রোগের জীবাণুবাহী এডিস মশা নিয়ন্ত্রণ বা নিধন করার ব্যাপারে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কার্যত কোনো তৎপরতা দৃশ্যমান হচ্ছেনা।

এদিকে- ডেঙ্গু প্রতিরোধে ইতিবাচক কিংবা আশাব্যাঞ্জক উদ্যোগ না নেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নগরবাসী। তারা বলছেন, বাসা-বাড়ি পরিচ্ছন্ন রাখার ব্যাাপারে কোনো প্রচারাভিযানও চোখে পড়ছেনা। তবে সিটি মেয়র বলছেন, ‘যেসকল স্থানে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেছে আমরা সে স্থানগুলোতে ওষুধ ছিটিয়েছি। সেই সাথে প্রতিটি ওয়ার্ডে যাতে পরিচ্ছন্ন অভিযান নিয়মিত পরিচালিত করা যায়, সে ব্যাপারে আমি কাউন্সিলরদের বলবো।’

করোনার মধ্যে ডেঙ্গুজ্বর দেশের বিভিন্ন স্থানে ভয়াবহ এক পরিস্থিতি তৈরী করেছে। তবে সেরকম ভয়াবহতা আচ্ছন্ন করেনি সিলেটে। এই সুযোগে আগাম প্রস্তুতি এবং নিয়মিত পরিচ্ছন্ন অভিযান চালানো জরুরী বলে মনে করছেন নগরবাসী। কারণ, করোনার মতো ডেঙ্গুও এখন আলোচনার টেবিলে। ঢাকায় ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্তের সংখ্যা দিনদিন বাড়ছে। বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে তারা ‘বিশেষ পরিচ্ছন্নতা অভিযান’ এবং ‘চিরুনি অভিযান’ও পরিচালনা করেছেন। অভিযানে বাসাবাড়ি, বিভিন্ন রকমের স্থাপনা, নির্মাণাধীন ভবন ইত্যাদিতে সদলবলে পরিদর্শন করে লোকজনের কাছ থেকে জরিমানাও আদায় করেছেন। কিন্তু সিলেট সিটি কর্পোরেশন এ ব্যাপারে জোরেসোরে কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছেনা। ফলে অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

অন্যদিকে চলতি মৌসুমে ডেঙ্গু পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ ধারণ করতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানিয়েছেন, ‘নগরীর কয়েকটি ওয়ার্ডে আমরা এডিসের লার্ভা পাওয়ায় ওষুধ ছিটিয়েছি। আরো কর্মসূচি আমাদের হাতে রয়েছে।’

নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ডের বাসিন্দারা জানান, ‘এবছর মধ্যে মশক নিধনের কোনো অভিযান চোখে পড়েনি। বাসা-বাড়ির পেছনে যে খাল রয়েছে সেগুলো এখনই পরিস্কার না করলে বিপদ বয়ে আনতে পারে। কারণ এগুলোই মূলত মশার প্রজনন স্থান।’ নগরীর কয়েকটি এলাকায় পরিত্যক্ষ অবস্থায় দিঘী রয়েছে। সেখানে প্রচুর ময়লা আবর্জনা

পরিবেশকর্মী আশরাফুল কবীর বলেন, ‘ঢাকায় এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণে না আসার একমাত্র কারণ মশার প্রজনন স্থান ঠিকঠাকভাবে পরিষ্কার করতে না পারা। সেখান থেকে আমাদের শিক্ষা নিতে হবে।’

বিদ্যমান পরিস্থিতিতে করণীয় সম্পর্কে বিশিষ্ট আইনজীবী ই ইউ শহীদুল ইসলাম শাহীন বলেন, পরিচ্ছন্ন অভিযান কিংবা মানুষকে সচেতন করতে দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থা সিটি কর্পোরেশনকে আরও সক্রিয় হতে হবে। ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করাই তাদের প্রধান কাজ। তিনি বলেন, এখন ডেঙ্গুজ্বরের মৌসুম। সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে অতিজরুরী পদক্ষেপ নেয়া দরকার। সাতাশটি ওয়ার্ডে কোথাও এডিসের লার্ভা কিংবা ময়লা-আবর্জনা আছে কি না সেদিকে খেয়াল দেয়া জরুরী।’

ডা, তায়েফ আহমদ জানান, ডেঙ্গু একটি ভাইরাসজনিত রোগ। এটি মশার কামড়ের মাধ্যমে ছড়ায়। আক্রান্ত ব্যক্তিকে এডিস মশা কামড়ালে ডেঙ্গু ভাইরাস রক্তের সাথে মশার দেহে চলে যায়। মশার শরীরে এ ভাইরাস বংশবৃদ্ধি করে। ৮-১০ দিন পর ওই মশা অন্য কাউকে কামড়ালে তার শরীরে ভাইরাসটি ঢুকে সেও আক্রান্ত হয়।

যোগাযোগ করা হলে স্বাস্থ্য বিভাগ সিলেটের বিভাগীয় পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় জানান, সিলেটে কোনো ডেঙ্গুরোগী এখনো পাওয়া যায়নি। তবে, এ সময় নগর পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখা সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্ব। শহরের সবগুলো নালা, ছড়া পরিস্কার আছে কি না, বাসা বাড়ির কোথাও পানি জমছে কিনা এব্যাপারে জনগতে সচেতন করা তাদের প্রদান কাজ।’


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY Web-NEST- BD
ThemesBazar-Jowfhowo