শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:১২ অপরাহ্ন

সিলেটে এনজিও কর্মকর্তা খুন, গ্রেফতার ৩

সিলেটে এনজিও কর্মকর্তা খুন, গ্রেফতার ৩


 

নিজস্ব প্রতিবেদক

সিলেটের দক্ষিন সুরমায় এনজিও কর্মকর্তা আনোয়ার হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে এখন পর্যন্ত ৩ জন ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত বুধবার রাতে ও বৃহস্পতিবার দিনে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

নিহত আনোয়ার সীমান্তিক নামের একটি এনজিও সংস্থার ঢাকা শাখার কর্মকর্তা। সিলেটে তিনি প্রশিক্ষণের কাজে এসেছিলেন। আনোয়ার ভোলা সদরের শ্যামপুর গ্রামের লতিফ শিকদারের ছেলে।

জানা যায়, গত বুধবার রাত নয়টার দিকে সিলেটের দক্ষিণ সুরমার হুমায়ুন রশীদ চত্বর থেকে রেল স্টেশনে যাওয়ার পথে আনোয়ার হোসেনকে (৪০) ছুরিকাঘাত করে পালিয়য়ে যায় ৪ ছিনতাইকারী। পরে স্থানীয়রা তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনার পর নিহতের ছোট ভাই মো. বাবুল শিকদার বাদী হয়ে দক্ষিণ সুরমা থানায় অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের করেন।

গ্রেফতারকৃতরা হল- বগুড়া জেলার শাহজাহানপুর থানার বিরিকুল্লা গ্রামের জাহিদুল ইসলামের ছেলে মাহফুজুর রহমান বিপ্লব (২০), সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারের লিয়াকতগঞ্জের মো: মোস্তাফা মিয়ার ছেলে জালাল আহমদ (২০), হবিগঞ্জের চুনারুঘাটের সাটিয়া গ্রামের মৃত নূর হোসেনের ছেলে সোলেমান মিয়া (২১)।

এদিকে ঘটনার পরপরই মাঠে নামে পুলিশ। সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ কমিশনার (দক্ষিণ) সোহেল রেজা, দক্ষিণ সুরমা থানার এসি মাইন উদ্দিন, ওসি কামরুল হাসান তালুকদার ও ওসি (তদন্ত) সুমন চৌধুরীসহ পুলিশ সদস্যরা আলাদা আলাদা টিম করে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪ ছিনতাইকারীর মধ্যে ৩ জনকে আটক করতে সক্ষম হন।

বৃহস্পতিবার মূল হোতা বিপ্লবকে গ্রেফতারের পর আদালতে প্রেরণ করা হয়। পরে আদালতে বিপ্লব ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

বিপ্লব বর্তমানে সিলেট নগরীর মোমিনখলা এলাকায় বসবাস করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ কমিশনার (দক্ষিণ) সোহেল রেজা।

তিনি বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে আমি তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। ‘পুলিশ বিভিন্ন স্থানে বিশেষ অভিযান চালিয়ে ঘটনায় প্রধান আসামিসহ জড়িত ৩ আসামিকে গ্রেফতার করে। বিপ্লব নামে এক যুবক ইতিমধ্যে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। ঘটনায় ব্যবহৃত দুটি ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার কথা শিকার করেছে। অন্য আসামিদের ধরতে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’






© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY SYLHET-LIVE-24
ThemesBazar-Jowfhowo