শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৪ অপরাহ্ন

সরকারি নির্দেশনা :
করোনা ভাইরাস সংক্রমন রোধে মাস্ক পরুন, নিরাপদ থাকুন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। নিজে বাঁচুন এবং পরিবারকে সুস্থ রাখুন। সৌজন্যে : SylhetLive24.com
আজকের গুরুত্বপূর্ণ যত খবর
সিলেটে সম্পাদকসহ ৩ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে সাজানো মামলা, আন্দোলনের ডাক দিলো ‘ল’ কলেজ ছাত্র ফোরাম সবুজ সিলেট’র সম্পাদকসহ ৩ সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা, সিলেট মঞ্চ নাগরিক সেবা পরিষদের নিন্দা মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা, উদ্বেগ-নিন্দা সম্পাদক পরিষদের সবুজ সিলেট সম্পাদকসহ ৩ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা : বিভিন্ন সংগঠনের নিন্দা সবুজ সিলেট পত্রিকার সম্পাদকসহ তিন সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা : নিন্দা জানালো সিলেট সামাজিক ছাত্র আন্দোলন ফয়জুল মুক্ত জাফলং না হলে আন্দোলনের হুমকি জাফলং-পিয়াইন নৌপথের আতঙ্ক জামাই সুমন সাম্প্রদায়িক অপশক্তি রুখে দিতে যুবকদের ইসলামী জ্ঞান অর্জন করতে হবে -এড. জামান আলোচিত বালুখেকো ফয়জুলের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানীর মামলা কাউন্সিলর শামীমের কার্যালয়ে বিএনপি-জামায়াতের অফিস! ছাত্রলীগের কমিটি বাতিলের দাবি : সিলেটে আজ থেকে বিক্ষোভ জাফলংয়ে ২০ কোটি টাকার বালু লুটের ঘটনায় ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা জাফলংয়ে ২০ কোটি টাকার বালু লুট : মন্ত্রীর নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা ‘টাকার বিনিময়ে’ ছাত্রলীগের কমিটি, দুই সদস্যের পদত্যাগ সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন উপশহরে বাসা দখল : যুবদল নেতা নেসার কারাগারে পর্ণোগ্রাফি মামলায় জাফলংয়ের আলোচিত আলীম উদ্দিন কারাগারে আজ শুক্রবার নগরীর যেসব এলাকায় বিদ্যুৎ থাকবে না নগরজুড়ে তোলপাড় : কর্মীকে বাঁচাতে মামলা করেনি সিসিক! সিলেটে মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত
সিলেটের দুই প্রকল্প নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ক্ষোভ, ‘রিজাইন’ দেয়ার পরামর্শ

সিলেটের দুই প্রকল্প নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ক্ষোভ, ‘রিজাইন’ দেয়ার পরামর্শ

sylhetlive24.com/সিলেট লাইভ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিবেদক
করোনা পরিস্থিতিতে সিলেটে দুই বছর নিয়মিত যাওয়া-আসা হয়নি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেনের। তবে- ঢাকায় থেকেই তিনি সিলেটের সব কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেছেন। এমনকি ওই দুই বছর সিলেটের স্বাস্থ্যসেবা স্বাভাবিক রাখতে সার্বক্ষণিক মনিটরিং করেছেন। এখন করোনা পরিস্থিতি অনেকটা কমে গেছে। জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশন থেকে ফিরে মঙ্গলবার একদিনের জন্য সিলেট সফর করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। কয়েকটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে তিনি ব্যস্ত সময় অতিবাহিত করেন। আর এই সময়ে সিলেটের দুটি উন্নয়ন কর্মকাণ্ড নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন সিলেট-১ আসনের এমপি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন।

এরমধ্যে একটি হচ্ছে; বিমানবন্দর-বাদাঘাট বাইপাস সড়কটির চারলেনের কাজ শুরু না হওয়া ও অপরটি স্বাস্থ্য খাতের ১১০ কোটি টাকার একটি প্রকল্প ফেরত যাওয়া নিয়ে। দুটি প্রকল্পের জন্য তিনি সংশ্লিষ্টদের ওপর ক্ষোভ ঝাড়েন। ভারত সরকারের তরফ থেকে সিলেটের স্বাস্থ্য বিভাগকে উপহার স্বরূপ দুটি এম্বুলেন্স প্রদান করা হয়েছে। এ দুটি এম্বুলেন্স প্রদান অনুষ্ঠান শেষে সিলেটের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এ সময় তিনি উল্লেখ করেন; সিলেটের বিমানবন্দর-বাদাঘাট বাইপাস সড়কের কথা। ১২ বছর ধরে সড়ক ও জনপথ বিভাগ-সওজ এই প্রকল্পের কাজ ঝুলিয়ে রেখেছে। ১২ বছরে ১২ কিলোমিটার রাস্তার প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে পারেনি তারা। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী সওজের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের ‘রিজাইন’ দেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। এই ব্যর্থতার জন্য সওজ কর্মকর্তাদের লজ্জা হওয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন- সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ২০১০ সালে বিমানবন্দর-বাদাঘাট বাইপাস সড়ক উন্নয়নের প্রকল্প গ্রহণ করেছিলেন। এই ব্যর্থতা আমাদের জন্য দুঃখের, যারা এই রাস্তা ব্যবহার করছেন তাদের জন্যও দুঃখের। আর যারা এই কাজের দায়িত্বে ছিলেন তাদের জন্য লজ্জার। ১২ বছরে একটি রাস্তা করতে না পারার জন্য তাদের মাথা ‘হেট’ হওয়া উচিত। লজ্জায় তাদের চাকরি ছেড়ে দেয়া উচিত।

ড. মোমেন বলেন, ‘এখন সময় এসেছে আমাদেরও এ রকম চিন্তা-ভাবনা করার। প্রধানমন্ত্রীকেও এ ব্যাপারে অবহিত করা হয়েছে। কারণ জনগণের কাছে আমরা উন্নয়নের ব্যাপারে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। উন্নয়নের ব্যাপারে কোনো গাফিলতি গ্রহণযোগ্য নয়।’ সিলেটের কোনো উন্নয়ন যাতে আটকে না যায়, সে ব্যাপারে স্থানীয় নেতাদেরও দৃষ্টি রাখার পরামর্শ দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এদিকে- স্বাস্থ্য খাতে ফেরত গেছে ১১০ কোটি টাকার একটি প্রকল্প। বিশেষায়িত মা ও শিশু হাসপাতাল ২০০ বেডে উন্নীত না করে শত কোটি টাকা ফেরত দেয়ায় ক্ষোভ ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন তিনি। মন্ত্রী বলেন- সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালকে ২০০ বেডের বিশেষায়িত মা ও শিশু হাসপাতাল করার জন্য প্রকল্প গ্রহণ করেছিলেন। এজন্য ১১০ কোটি টাকাও বরাদ্দ দিয়েছিলেন। কিন্তু শামসুদ্দিন হাসপাতালকে বিশেষায়িত হাসপাতালে উন্নীত করা হয়নি। ১শ’ শয্যা থেকে দুইশ’ শয্যায় উন্নীত করা হয়নি। তিনি জানান- ২শ’ শয্যার হাসপাতাল না করে ১শ’ শয্যা সংস্কার করে বরাদ্দ থেকে ব্যয় করা হয় ১০ কোটি টাকা। কাজ না করে ফেরত দেয়া হয় ১শ’ কোটি টাকা। সংশ্লিষ্টরা সিলেটের স্বাস্থ্যসেবার জন্য বরাদ্দকৃত টাকা নষ্ট করেছেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী দুঃখ করে বলেন, ২শ’ শয্যার মা ও শিশু হাসপাতালের জন্য ডিজাইন রেডি ছিল, অর্থ বরাদ্দও ছিল। কিন্তু শুধুমাত্র সংশ্লিষ্টদের গাফিলতির কারণে প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হয়নি। কষ্ট করে টাকা আনার পর কাজ না হওয়া খুবই দুঃখজনক। এর জন্য দায়ীদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেয়া উচিত।

ক্ষোভ প্রকাশ করে মন্ত্রী জানান- ‘সিলেটের উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী টাকা দিচ্ছেন। কোনো প্রকল্প নিয়ে সমস্যা থাকলে আমার সিলেট ও ঢাকার অফিস উন্মুক্ত। সমস্যা জানাতে পারেন। সমস্যা জানলে সমাধান করতে পারবো।’ এদিকে- ঢাকা-সিলেট ৬ লেন প্রকল্পের কাজ শুরু হচ্ছে বলেও সাংবাদিকদের জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। সিলেট-ঢাকা ৬ লেন মহাসড়কের কাজকে ভাগ করা হয়েছে ১৩টি সেকশনে। এরমধ্যে ৮টি সেকশনের কাজের টেন্ডার করা হয়েছে। শিগগিরই শুরু হবে কাজ। তবে জমি অধিগ্রহণ জটিলতার কারণে সিলেট অংশে কাজ শুরু হতে বিলম্ব হচ্ছে।

মন্ত্রী বলেন- মহাসড়কের ১৩টি সেকশনের মধ্যে ৮টিতে টেন্ডার হয়ে গেছে। সিলেট থেকে এই প্রকল্পের কাজ শুরুর অনুরোধ জানানো হয়েছিল ওবায়দুল কাদেরের কাছে। কিন্তু তিনি জানিয়েছেন- সিলেট ও হবিগঞ্জে জমি অধিগ্রহণ নিয়ে কিছু জটিলতা আছে। তাই এখনই সিলেট থেকে মহাসড়ক ৬ লেনে উন্নীত করার কাজ শুরু করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে শিগগিরই এই জটিলতা কাটিয়ে কাজ শুরু হবে। কোভিডের কারণে কাজে কিছু দেরি হয়েছে। আশা করা যাচ্ছে; জমি অধিগ্রহণের জটিলতা কেটে যাবে। ২০২৩ সালের মধ্যে যাতে সিলেট-ঢাকা ৬ লেন মহাসড়ক প্রকল্পটি যাতে বাস্তবায়ন করা যায়, সেজন্য তিনি সবার কাছে দোয়া ও সহযোগিতা চান।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY Web-NEST- BD
ThemesBazar-Jowfhowo