সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ১২:১৯ অপরাহ্ন

সাবেক ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে দুই ব্যাংক কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহন

সাবেক ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে দুই ব্যাংক কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহন

sylhetlie24.com


সিলেট লাইভ ডেস্ক :: সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে দুর্নী‌তি দমন ক‌মিশনের (দুদ‌ক) করা মামলায় পুলিশের বরখাস্তকৃত সিলেট রেঞ্জের সাবেক উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমানসহ চারজনের বিরুদ্ধে বরিশাল বেসিক ব্যাংকের দুই কর্মকর্তা সাক্ষ্য দিয়েছেন।

সাক্ষ্য দেওয়া দুজন হলেন- বেসিক ব্যাংকের প্রধান শাখার (মতিঝিল) মহাব্যবস্থাপক মমিনুল হক এবং অপারেশন ম্যানেজার এএম সাহেদ হোসেন।

মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) ঢাকার ষষ্ঠ বিশেষ জজ আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামানের আদালতে সাক্ষ্য দেন তারা। এরপর আসামি পক্ষের আইনজীবী তাদের জেরা করেন।

এ নিয়ে মামলাটিতে অভিযুক্ত ৩৩ সাক্ষীর মধ্যে ১৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হলো। পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আদালত আগামী ১২ এপ্রিল দিন ধার্য করেন।

এই মামলার আসামিরা হলেন ডিআইজি মিজানুর রহমান, মিজানের স্ত্রী সোহেলিয়া আনার রত্না, ছোট ভাই মাহবুবুর রহমান ও ভাগ্নে মাহমুদুল হাসান। এর মধ্যে মিজানের স্ত্রী সোহেলিয়া আনার রত্না ও ছোট ভাই মাহবুবুর রহমান পলাতক।

কারাগারে থাকা ডিআইজি মিজান ও তার ভাগ্নে মাহমুদুল হাসানকে আদালতে হাজির করা হয়।

২০১৯ সালের ২৪ জুন ৩ কোটি ৭ লাখ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন ও ৩ কোটি ২৮ লাখ টাকা অবৈধভাবে অর্জনের অভিযোগে মিজানসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক।

গত বছর ১ জুলাই শাহবাগ থানা পুলিশ মিজানকে গ্রেফতার করে। পরদিন ঢাকার সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে তাকে হাজির করা হয়। এরপর তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান বিচারক।

ওই মামলার বর্ণিত সম্পদের বিষয়ে অনুসন্ধানকালে দুদক কর্মকর্তা এনামুল বাছিরকে ৪০ লাখ টাকা ঘুষ দেওয়ার কথা নিজে গণমাধ্যমে প্রকাশ করেন ডিআইজি মিজান।

পরে ঘুষ লেনদেনের বিষয়েও মামলা হয়। সেই মামলাটি বিচারের জন্য চার নম্বর বিশেষ জজ আদালতে বিচারাধীন।






© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY Web-NEST- BD
ThemesBazar-Jowfhowo