শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৬:৫৬ পূর্বাহ্ন

সরকারি নির্দেশনা :
করোনা ভাইরাস সংক্রমন রোধে মাস্ক পরুন, নিরাপদ থাকুন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। নিজে বাঁচুন এবং পরিবারকে সুস্থ রাখুন। সৌজন্যে : SylhetLive24.com
আজকের গুরুত্বপূর্ণ যত খবর
জকিগঞ্জে চলছে মাইকিং : ঢুকছে পানি, ভাঙলো ৩ নদীর মোহনার ডাইক মাধবপুরে যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীর গালে ছ্যাঁকা! ছাত্রদল নেতা রুবেল ও রাসেলের জামিন লাভ, কারা ফটকে সংবর্ধনা বজ্রপাতে তিন শিশুর মৃত্যু শিশু অধিকার বাস্তবায়ন সম্পর্কিত জবাবদিহিতা বিষয়ক সংলাপ সিলেটে বন্যার্তদের মধ্যে শুকনো খাবার বিতরণ করলেন জেবুল সরকারের পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগে বন্যার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে : ডা. শিপলু জগন্নাথপুরে মসজিদ নির্মাণের নামে সরকারি স্কুলের জমি দখল সিলেট সদর উপজেলা যুবদল থেকে ডালিম বহিস্কার সিলেটে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত বিশ্বনাথে ধর্ষকের হুমকি, অসহায় মা-মেয়ে উপশহরে পানিবন্দি মানুষের পাশে দিদার রুবেল অ্যাড. জামানের মায়ের সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিল সিলেটে বন্যার্তদের পাশে মহানগর আ. লীগের সহ সভাপতি আসাদ উদ্দিন সিলেট নগরী রক্ষার্থে ‘শহর রক্ষা বাঁধ’ নির্মাণ প্রয়োজন : মহানগর বিএনপি সিলেটের বানভাসী মানুষদের পর্যাপ্ত ত্রাণ দেওয়ার দাবি বাসদের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী রুবি আলমের উদ্যোগে খাদ্য বিতরণ সিলেটে জামায়াত-শিবিরের ২১ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে পুলিশ অ্যাসল্ট মামলা ছাত্রদল নেতা রুবেল ও রাসেলের গ্রেফতারে কয়েছ লোদীর নিন্দা দেশের মানুষ সরকারের পাশে, ষড়যন্ত্রকারীদের স্বপ্ন কোনোদিন পূরণ হবে না : পররাষ্ট্রমন্ত্রী
সাদা পোষাকে সশস্ত্র লোকজন ছেলেকে তুলে নেয়, এক সপ্তাহেও খোঁজ মিলেনি

সাদা পোষাকে সশস্ত্র লোকজন ছেলেকে তুলে নেয়, এক সপ্তাহেও খোঁজ মিলেনি

sylhetlive24.com


সিলেট লাইভ ডেস্ক :: সুনামগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থী সজীব ইখতিয়ারের সন্ধান চেয়েছেন তার মা মোছা. নাদিরা বেগম। জামালগঞ্জের আছানপুর থেকে গত ২৮ এপ্রিল সাদা পোষাকে ১০/১২ জন সশস্ত্র লোক তার ছেলেকে তুলে নিয়ে যাওয়ার পর এখনো সন্ধান পাননি তিনি। জেলার তাহিরপুর উপজেলার কামারকান্দি গ্রামের মৃত আমিরুল ইসলামের স্ত্রী ও সিলেট নগরের টিলাগড় রাজপাড়ার সুরভী ৭২ নম্বর বাসার বাসিন্দা নাদিরা বেগম তাঁর ছেলের সন্ধান দিতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

মঙ্গলবার সিলেট জেলা প্রেস ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে নাদিরা বেগম ছেলের সন্ধান দাবি করে লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন, তার পিতার বাড়ি সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ থানার আছনপুর গ্রামে। ২য় ছেলে সুনামগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ ছাত্র সজীব ইখতিয়াকে নিয়ে গত ২০ এপ্রিল বেড়াতে যান। গত ২৮ এপ্রিল বিকাল ৩ টার দিকে আছানপুরের বাড়ি থেকে তাকে একদল সশস্ত্র লোক জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায়। তাদের সাথে জামালগঞ্জ থানা পুলিশের উপ-রিদর্শক (এসআই) সোহাগ ও উপ-রিদর্শক (এসআই) রফিকুল ছিলেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা চিনতে পেরেছেন। ঘটনার পর তিনি জামালগঞ্জ থানায় যোগাযোগ করেও কোনো তথ্য পাননি। এমনকি জিডি করতে গেলেও জামালগঞ্জ থানাপুলিশ তা গ্রহণ করেনি। বিভিন্ন দপ্তরে যোগাযোগ করে ব্যর্থ হয়ে ২ এপ্রিল ডিআইজি ও সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত আবেদন করেন নাদিরা। কিন্তু এখনো সজীব ইখতিয়ারের সন্ধ্যান দিতে পারেনি সুনামগঞ্জ পুলিশ।

নাদিরা জানান, তার ছেলে সজীব ইখতিয়ার কোন দল ও মতের সাথে সম্পৃক্ত নয়। দেশবিরোধী ও রাষ্ট্রদ্রোহী কিংবা সমাজ বিরোধী অপরাধেও জড়িত নয়। তার বিরুদ্ধে মামলাও নেই। তিনি তার ছেলেকে অক্ষত অবস্থায়তার কোলে ফেরত দিতে প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের উর্দ্ধতন মহলের পদক্ষেপ কামনা করেন।






© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY Web-NEST- BD
ThemesBazar-Jowfhowo