বুধবার, ০৬ Jul ২০২২, ১১:০৮ অপরাহ্ন

বিবিদইল বিদ্যালয়ের বির্তকিত ম্যানেজিং কমিটির বিরুদ্ধে আদালতের নিষেধাজ্ঞা

বিবিদইল বিদ্যালয়ের বির্তকিত ম্যানেজিং কমিটির বিরুদ্ধে আদালতের নিষেধাজ্ঞা

sylhetlive24/সিলেট লাইভ


সিলেট লাইভ ডেস্ক

সিলেটের দক্ষিণ সুরমার লালাবাজার ইউনিয়নের বিবিদইল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের বির্তকিত ম্যানেজিং কমিটির দায়িত্বভার গ্রহণের বিরুদ্ধে অন্তর্বর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞা প্রদান করেছেন আদালত।

বিদ্যালয়ের বর্তমান ম্যানেজিং কমিটির পক্ষ থেকে দায়ের করা স্বত্ব মামলার শুনানী শেষে সোমবার এ আদেশ প্রদান করেন সিলেটের সিনিয়র সহকারী জজ, সদর আদালতের বিচরক হারুনুর রশীদ চৌধুরী।

বিদ্যালয়ের বর্তমান ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি, লালাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান পীর ফয়জুল হক, দাতা সদস্য জাহাঙ্গীর আলমসহ ৮ সদস্যের পক্ষ থেকে আদালতে এ মামলাটি দায়ের করা হয়।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, বিবিদইল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠিত হয় ২০১৯ সালের ৯ জুন। তিন বছর মেয়াদী ১২ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির সভাপতি ছিলেন প্রবীণ রাজনীতিবিদ আব্দুল ওয়াহাব খান খোকা।

গত বছরের ২৩ জুন তিনি মারা গেলে ম্যানেজিং কমিটি সর্বসম্মতিক্রমে লালাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের তৎকালীন চেয়ারম্যান পীর ফয়জুল হককে সভাপতি মনোনীত করেন। এই কমিটি গত এক বছর যাবৎ বিদ্যালয়ের সার্বিক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। বর্তমান কমিটির মেয়াদ হয়েছে ৯ জুন পর্যন্ত। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সদস্য সচিব সাইফুল ইসলাম সবার অজ্ঞাতে জাল ভোটার তালিকা ও নির্বাচনী শিডিউল তৈরী করে জনৈক দিলওয়ার আলী খানকে সভাপতি করে ১২ সদস্য বিশিষ্ট ম্যানেজিং কমিটি গত ৮ মে সিলেট শিক্ষা বোর্ড থেকে অনুমোদন করিয়ে আনেন।

এবিষয়টি জানাজানি হলে বর্তমান ম্যানেজিং কমিটি শিক্ষা বোর্ড থেকে কাগজপত্র সংগ্রহ করে দেখেন কথিত এই ম্যানেজিং কমিটি গঠনের লক্ষ্যে যে রেজুলেশন প্রণয়ন করা হয়েছে তাতে বিদ্যালয়ের বর্তমান ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের স্বাক্ষর জাল করা হয়েছে। এই জালিয়াতির ঘটনায় বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির পক্ষ থেকে দাতা সদস্য জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে সিলেটের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ৩য় আদালতে একটি জালিয়াতির মোকাদ্দমা দায়ের করেন। মামলাবনং- দক্ষিণ সুরমা সিআর-১২১/২০২২। যা বর্তমানে পিবিআই তদন্তাধিন আছে।

এদিকে, জাল জালিয়াতির মাধ্যমে সৃষ্ট নতুন ম্যানেজিং কমিটি যাতে স্কুল পরিচালনায় দায়িত্বভার গ্রহণ করতে না পারে, সেজন্য অন্তর্বর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞা সহ যথাযথ প্রতিকার চেয়ে সিনিয়র সহকারী জজ সদর আদালতে ৬ জুন সোমবার স্বত্ব মামলা দায়ের করেন বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির ৮ সদস্য।
মামলা নং- ১৬৫/২০২২ইং।

শুনানী শেষে আজ আদালত বিবাদীদের বিরুদ্ধে ১০ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানো নোটিশ জারি এবং এই সময়ের মধ্যে বিতর্কিত কমিটি যাতে বিদ্যালয়ের কার্যক্রম পরিচালনায় কোন হস্তক্ষেপ করতে না পারে সেই মর্মে নিষেধাজ্ঞার আদেশ প্রদান করেন।

বাদী পক্ষে এই মামলা পরিচালনা করেন সিনিয়র আইনজীবী কল্যাণ চৌধুরী, এডভোকেট মুহাম্মদ তাজ উদ্দিন, এডভোকেট মহালক্ষ্মী দেব ও এডভোকেট বিমলেন্দু মিত্র তপন।






© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY Web Nest BD
ThemesBazar-Jowfhowo