মঙ্গলবার, ০৫ Jul ২০২২, ০৩:৫৪ অপরাহ্ন

বাদাম বাগিচায় তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা, মামলা তুলতে পরিবারকে হুমকি!

বাদাম বাগিচায় তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা, মামলা তুলতে পরিবারকে হুমকি!

sylhetlive24.com/সিলেট লাইভ


সিলেট লাইভ ডেস্ক

সিলেট নগরীর এয়ারপোর্ট থানাধীন বাদাম বাগিচায় এক তরুণীকে (১৬) ধর্ষণ চেষ্টা ও তার অন্তস্বত্তা বড় বোনের উপর হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের করে বিপাকে পরেছে পরিবার। গত ১৩ মে এয়ারপোর্ট থানায় এ মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগীর পিতা।

তিনি বাদামবাগিচার মৃত হাজী রাজা মিয়ার কলোনীর বাসিন্দা। থানায় মামলা নং- ১৪/১৩০।

মামলার পর থেকে বাদী ও তার পরিবারকে অভিযুক্ত ইলাল আহমদের মা রানী বেগম ও বোন ফাহিমা বেগম প্রতিনিয়ত মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দিয়ে আসছেন। অন্যথায়- ভিকটিম ও তার পরিবারকে মেরে লাশ গুম করে ফেলবে বলেও হুমকি দিচ্ছেন তারা।

শনিবার (২১ মে) ভিকটিম (১৬) ওই মেয়ে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, আমার বাবা ও মা সারাদিন কাজে থাকেন। এ সুযোগে মামলার আসামী ইলাল আহমদের মা ও বোন ঘরে এসে মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দিচ্ছে। মামলা তুলে না নিলে আমি সহ আমাদের পরিবারকে মারধর করবে, বিভিন্ন মামলার আসামী করে জেলে পাঠানোরও হুমকি দিচ্ছেন তারা। এ ঘটনায় তারা থানায় সাধারণ ডায়েরী করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম জানান, ধর্ষনচেষ্টার মামলায় আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তিনি ভিকটিমকে বাদীর মা ও বোনের হুমকির ঘটনার বিষয়ে অবগত নন।

এসএমপির এয়ারপোর্ট থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. জসিম উদ্দিন বলেন, বাদামবাগিচায় ধর্ষণচেষ্টা মামলায় এখনও কোন আসামী গ্রেফতার হয়নি। আসামী ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

মামলার বাদীকে হুমকির ব্যাপারে তিনি বলেন, এখনও এ ব্যাপারে কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জানা যায়, মামলার বাদীর দুই কন্যাকে দীর্ঘদিন থেকে ধরে উত্ত্যক্ত ও কু-প্রস্তুাব দিয়ে আসছেন। তাদের যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ হয়ে বড় মেয়ে (১৮) কে কিছুদিন পূর্বে বিয়ে দেন। বড় মেয়ের বিয়ের পর থেকেই ছোট মেয়ের (১৬) উপর কুদৃষ্টি পড়ে রাজা মিয়া ছেলে ইলাল আহমদ ও ভাড়াটিয়া আব্দুর রহমানের। ভুক্তভোগী মেয়ের পিতা একজন রিক্সাচালক ও মা ঢালাই লেবার হওয়ায় প্রতিদিন সকালেই তাদের বাসা থেকে বের হয়ে কাজে যেতে হয়। এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে লম্পট ইলাল ও আব্দুর রহমান বারবার কুপ্রস্তাব দিতে থাকে। এতে রাজি না হওয়ায় গত সোমবার (২ মে) রাত সাড়ে ১০টার দিকে বাসায় প্রবেশ করে ঘরের দরজা বন্ধ করে জোরপূর্বক ধর্ষন করার চেষ্টা করে। তখন ওই মেয়ে ধস্তাধস্তি ও চিৎকার শুরু করলে তার বড় বোন সহ আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসেন। তখন ভুক্তভোগীর ৪ মাসের অন্তস্বত্তা বড় বোন এগিয়ে আসলে তাকেও কিল, ঘুষি, লাথি মারে গুরুতর জখম করে ধর্ষনচেষ্টাকারীরা। আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে লম্পট ইলাল ও আব্দুর রহমান পালিয়ে যায়।






© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY Web Nest BD
ThemesBazar-Jowfhowo