বুধবার, ০৬ Jul ২০২২, ০২:০২ অপরাহ্ন

ফিজা নিয়ে দ্বন্দ্ব : মুমিনকে ফাসাঁতে এবার নতুন ষরযন্ত্র

ফিজা নিয়ে দ্বন্দ্ব : মুমিনকে ফাসাঁতে এবার নতুন ষরযন্ত্র

sylhetlive24.com/সিলেট লাইভ
ফাইল ছবি। ইনসেটে- আজহারুল ইসলাম মুমিন ও নজরুল ইসলাম বাবুল।


বিশেষ প্রতিবেদক

সিলেটের ফিজা এন্ড কোম্পানী এবং ফিজা এন্ড কো: ইউকে-এর পরিচালক আজহারুল ইসলাম মুমিনকে ফাসাঁতে চলছে গভীর ষরযন্ত্র! হামলা, মামলা ও গাড়ি ভাঙচুরের পর এবার তার প্রতিষ্ঠান লন্ডনস্থ ফিজা এন্ড কো: ইউকে-এর কাছে পাওনা টাকা দাবি করে নোটিশ পাঠিয়েছেন সিলেটের ফিজা এন্ড কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নজরুল ইসলাম বাবুল। তবে এই নোটিশ মুমিনের কাছে পাঠানো হয়নি বরং ষরযন্ত্র করে নোটিশটি পাঠানো হয়েছে মুমিনের বড়ভাই জহিরুল ইসলাম মিঠু’র নামে। বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ করায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হোয়াটস অ্যাপে গালি-গালাজ অব্যাহত রেখেছেন নজরুল ইসলাম বাবুল।

জানা গেছে, কাগজেপত্রে লন্ডনস্থ ফিজা এন্ড কো: ইউকে- ৭৭-৭৯ টার্ন পাইক লেন, উডগ্রীন লন্ডন এর মালিক আজহারুল ইসলাম মুমিন। শুরু থেকে তিনি লন্ডন সরকারকে তার কোম্পানীর নির্ধারিত ট্যাক্স পরিশোধ করছেন। গেলো ক’মাস হল তিনি দেশে এসেছেন। সিলেটের ফিজা এন্ড কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নজরুল ইসলাম বাবুলের কাছে লন্ডনস্হ ফিজা এন্ড কো: ইউকে-এর প্রায় সাড়ে ৪ কোটি টাকা পাওনা রয়েছে। মূলত এই টাকা না দিতে নজরুল ইসলাম বাবুল মুমিনের বড়ভাই জহিরুল ইসলাম মিঠু’র কাছে এই নোটিশ পাঠিয়েছেন। এনিয়ে শুরু হয়েছে দ্বন্দ্ব।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আজহারুল ইসলাম মুমিন। মুমিন বলেন, অতীতের মতো আমাকে হয়রানীর পরিকল্পনা করছেন তারই জন্মদাতা পিতা সিলেট চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক, ফিজা এন্ড কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নজরুল ইসলাম বাবুল। তিনি আমাকে হেও করার জন্য আমার বড়ভাই আজিন এগ্রো ফুড-এর পরিচালক জহিরুল ইসলাম মিঠু’র কাছে টাকা দাবি করে এই নোটিশ পাঠিয়েছেন। সিলেটের ফিজা এন্ড কোম্পানীরও আমি একজন পরিচালক। এছাড়া আমি লন্ডনস্থ ফিজা এন্ড কো: ইউকে-এর মালিক। শুরু থেকেই আমি লন্ডন সরকারকে আমার কোম্পানীর নির্ধারিত ট্যাক্স পরিশোধ করে আসছি। আমি দেশে আশার পর আমার বিরুদ্ধে গভীর ষরযন্ত্র করছেন নজরুল ইসলাম বাবুল। হামলা, মামলা ও গাড়ি ভাঙচুরসহ নানান ঘটনা তিনি ঘটিয়েছেন। এবার তিনি আমার প্রতিষ্ঠান লন্ডনস্থ ফিজা এন্ড কো: ইউকে-এর কাছে পাওনা টাকা দাবি করেছেন। টাকা তিনি পাননা বরং আমার কোম্পনী তার কাছে প্রায় সাড়ে ৪ কোটি টাকা পায়। সেই টাকা তিনি না দেবার জন্য এবং আমাকে দেশ ছাড়া করার জন্য এই পরিকল্পনা করেছেন।

sylhetlive24.com/সিলেট লাইভ

FIZA & CO UK LIMITED

সিলেট লাইভ‘র কাছে ফিজা এন্ড কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নজরুল ইসলাম বাবুলের অকথ্য ভাষায় গালি-গালাজ ও হুমকির ভয়েস সংরক্ষিত রয়েছে।

নজরুল ইসলাম বাবুলের পাঠানো নোটিশে বলা হয়েছে- দীর্ঘদিন ধরে ফিজা এন্ড কোম্পানী ইউকেতে রপ্তানী করছে। বর্তমান করোনা মহামারিতে ব্যবসা-বানিজ্য হুমকির মুখে। এছাড়া কাচাঁমাল ও উতপাদিত পন্য এবং রপ্তানি পন্যের জাহাজ ভাড়া বৃদ্ধি পাওয়ার কারনে রপ্তানি করা সম্ভব হচ্ছে না। এছাড়া আপনাদের কাছে আমার ব্যক্তিগত পাওনা আগামী ৭ কার্য দিবসের মধ্যে জমা দেয়ার অনুরোধ।

এদিকে মুমিনের বড়ভাই আজিন এগ্রো ফুড-এর পরিচালক জহিরুল ইসলাম মিঠু জানান, নোটিশটি পেয়ে তাকে দেয়ার কারণ জানতে চাইলে- তার পিতা নজরুল ইসলাম বাবুল অকথ্য ভাষায় গালি-গালাজ শুরু করেন। পিতার এমন কান্ডে তিনি বিব্রত।

সিলেট চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক, ফিজা এন্ড কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নজরুল ইসলাম বাবুলের মুঠোফোন-01755×××581 নাম্বারে কল করলেও তা বন্ধ থাকায় বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।






© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY Web Nest BD
ThemesBazar-Jowfhowo