সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৬:৫৮ অপরাহ্ন

কাস্টঘরের জল্লায় এবার মনিন্দ্র বাহিনীর তান্ডব

কাস্টঘরের জল্লায় এবার মনিন্দ্র বাহিনীর তান্ডব

sylhetlive24.com/সিলেট লাইভ


বিশেষ প্রতিবেদক
কাস্টঘরের জল্লায় নীরবে চলছে মনিন্দ্র বাহিনীর তান্ডব। জল্লার আশপাশের জমি দখল করে হয়রানী, বিভিন্ন বাসার রড চুরিসহ নানান ঘটনার জন্ম নিচ্ছে এখন এই এলাকায়। বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসন আমলে নিচ্ছেন না বলে এক ভুক্তভোগী আব্দুল্লাহ অভিযোগ করেছেন। তিনি নিজের প্রাণ রক্ষায় এবং প্রবাসী চাচার ভিটে রক্ষায় এসএমপি’র কোতোয়ালী মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। মো. আব্দুল্লাহ কানাইঘাট উপজেলার বড়দেশ উত্তর গ্রামের মৃত সুলেমান আহমদের ছেলে। তিনি প্রবাসী মুহিবুর রহমান কামালের ভাতিজা। বর্তমানে শহরতলির খাদিমপাড়ার চামেলিবাগ এলাকার বসবাস করছেন। তিনি তার প্রবাসী চাচার কাস্টঘরের জল্লা এলাকার মাদানী সিটির ওই জমিটি দেখাশুনা করেন।

সাধারণ ডায়েরিতে অভিযুক্ত নগরীর মিরাবাজার যতরপুর এলাকার সুরেস চন্দ্র দে’র ছেলে মনিন্দ্র রঞ্জন দেসহ ৪ জনের নামোল্লেখ করে এবং ৪-৫ জন।

সাধারণ ডায়েরিতে অভিযোগ- আব্দুল্লাহর আপন চাচা প্রবাসী মুহিবুর রহমান কামালের সিলেট সদর মৌজার চালিবন্দরস্থ মিউনিসিপ্যালেটি জেএল নং-৭৬, খতিয়ান নং- ১৩০৬৪, এসএ দাগ নং- ৭৩৫৪, বিএস দাগ নং-৩১২২১ এ ৬ শতক ৬৮ পয়েন্ট জায়গা কেয়ারটেকার হিসেবে ভোগদখল থাকাবস্থায় দেখাশুনা করে আসছেন। গেল কিছুদিন থেকে আব্দুল্লাহকে মনিন্দ্র ও তার বাহিনী এই জায়গা আত্মসাৎ করার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যমে হুমকি-ধামকি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছেন। গত ২৯ জুন দুপুরে আব্দুল্লাহর চাচার ভোগদখলকৃত জমিতে ঘর নির্মাণকাজ চলাবস্থায় মনিন্দ্র ও তার বাহিনী অস্ত্রসহ জোরপূর্বক প্রবেশ করে নির্মাণ শ্রমিকদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় এবং কাজ বন্ধ করে দেয়। এসময় আব্দুল্লাহ এগিয়ে আসলে তাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তার চাচার নামে থাকা সাইনবোর্ড উপড়ে ফেলে এবং তাদের দুটি সাইনবোর্ড লাগিয়ে দেয়। অস্ত্রে সজ্জিত মনিন্দ্র বাহিনী জোরপূর্বক সাইবোর্ড বসিয়ে যাওয়ার সময় আব্দুল্লাহকে হুমকি প্রদান করে যে, তাদের দেওয়া সাইবোর্ড যদি সরিয়ে দিলে তাকে প্রাণে হত্যা করা হবে।

পরে আব্দুল্লাহ ৯৯৯ এ কল দিয়ে পুলিশের কাছে সহায়তা চাইলে এসএমপি’র কোতোয়ালি মডেল থানার একদল টহল পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে বিষয়টি অবগত হন। সাধারণ ডায়েরিতে আব্দুল্লাহ আরো উল্লেখ করেন, বর্তমানে তিনি দখলবাজ মনিন্দ্র ও তার বাহিনীর ভয়ে তিনি আতঙ্কে ও নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন।

এসব অভিযোগ অস্বীকার করে মনিন্দ্র রঞ্জন দে জানান, তিনি আব্দুল্লাহ কে চেনেন না এবং এই নাম কখনও শুনেন নি। এখানে ১৮ সংখ্যালঘুদের জমি রয়েছে। তিনি তা দেখাশুনা করেন।

বিষয়টি জানতে এসএমপি’র কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি এসএম আবু ফরহাদের মুঠোফনে কল করলে তা ব্যস্ত থাকায় বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

এদিকে একটি সূত্র জানায়, সম্প্রতি কাষ্টঘরের জল্লা এলাকার এই জমি দখল করে নগরীর তেরোরতন এলাকার মালেক মিয়ার কোলোনীর একটি ভাড়াটিয়া কালা রিপনের স্ত্রী নদী বেগম ও উপশহরের এইচ ব্লকের একটি কোলোনীর আবুনি নাম এক মহিলাকে দিয়ে দখল টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করছেন।

পূর্বে প্রকাশিত প্রতিবেদন
কাস্টঘরের জল্লায় এবার চোখ পড়েছে ভূমিখেকো মনিন্দ্রে’র

 

 






© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY Web-NEST- BD
ThemesBazar-Jowfhowo