বুধবার, ০৬ Jul ২০২২, ০২:০৬ অপরাহ্ন

কানাইঘাটে পাওনা টাকা চাওয়ায় হামলা : মুক্তিযোদ্ধাসহ আহত ১৫, আটক ৫

কানাইঘাটে পাওনা টাকা চাওয়ায় হামলা : মুক্তিযোদ্ধাসহ আহত ১৫, আটক ৫

sylhetlive24.com/সিলেট লাইভ
আটককৃত ৫ জন


কানাইঘাট সংবাদদাতা

কানাইঘাটে পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে রাতের আধাঁরে ঋণদাতা ও তার পক্ষের লোকজনের অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলায় ইউপি মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারসহ ১৫ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে গুরুতর আহত ১০ জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় কানাইঘাট থানা পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে জড়িত ৫ জনকে আটক করেছে।

জানা গেছে, কানাইঘাট উপজেলার লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউপির ভাউরভাগ ২য় খন্ড গ্রামের মুজম্মিল আলীর পুত্র এনাম উদ্দিনের ব্যবসায়িক প্রায় সাড়ে ৩ লাখ টাকা একই ইউপির সোনাতন পুঞ্জি গ্রামের মকবুল আলীর ছেলে হারুন রশিদের কাছে পাওনা ছিলো। গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টায় একই ইউপির বাদশা বাজারে এনামুল হক তার পাওনা টাকা হারুন রশিদের কাছে চাইলে হারুন রশিদ টাকা না দিয়ে উল্টো নানা ধরনের গালি-গালাজ ও ভয়ভীতি দেখায়।

এতে বাদশা বাজারের ব্যবসায়ীরা বিষয়টি শালিস বিচারে দেখে দেওয়ার জন্য এক বৈঠকে বসেন। এ সময় হারুন রশিদ শালিস বিচার না মেনে মোবাইল ফোনে তার আত্বীয় স্বজনকে খবর দিলে তারা দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে শালিস বৈঠক কারীদের উপর হামলা চালায়।

এসময় হারুন রশিদ গংদের সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত হন লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউপি মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হাজী নজিব আলী, বাউরভাগ ২য় খন্ড গ্রামের মুজম্মিল আলী, হেলাল আহমদ, বিলাল আহমদ, শামীম আহমদ, জসিম উদ্দিন, রাসেল আহমদ, আসাদ আহমদ, মোহাম্মদ আলী, মারুফ আহমদ।

তাদেরকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে কানাইঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা দ্রুত সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এছাড়া আহত নাসির আহমদ, জিল্লুর রহমান, ওলিউর রহমান, এনাম উদ্দিন, কামাল আহমদ ও জামাল উদ্দিনকে কানাইঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে।

এ ঘটনায় কানাইঘাট থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে সোনাতন পুঞ্জি গ্রামের হারুন রশিদ, মাসুক আহমদ, শফিক আহমদ, ইমরান আহমদ ও আশিক আহমদকে আটক করেছে। এ ঘটনায় বাদশা বাজারের ৪টি দোকান ভাংচুর ও ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলে বাজারের ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন।

এ ঘটনায় ভাউরভাগ ২য় খন্ড গ্রামের মুজম্মিল আলীর ছেলে এনাম উদ্দিন বাদী হয়ে সোনাতন পুঞ্জি গ্রামের হারুন রশিদ সহ ২৬ জনের বিরুদ্ধে কানাইঘাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

কানাইঘাট থানার (ওসি) তদন্ত জাহিদুল হক বলেন, এনাম উদ্দিনের পাওনা টাকা নিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে সোনাতন পুঞ্জি গ্রামের হারুন রশিদ গংদের হামলায় মুক্তিযোদ্ধা সহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। আমরা তাৎক্ষনিক খবরপেয়ে এ সন্ত্রাসী হামলার সাথে জড়িত ৫ জনকে আটক করেছি। এছাড়া আটকৃতদেরকে বুধবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।






© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY Web Nest BD
ThemesBazar-Jowfhowo