বুধবার, ০৬ Jul ২০২২, ১০:১১ অপরাহ্ন

ওঁরা সম্প্রদায়ের জায়গা দখল : হামলা ও প্রতিবাদ

ওঁরা সম্প্রদায়ের জায়গা দখল : হামলা ও প্রতিবাদ

sylhetlive24.com/সিলেট লাইভ


সিলেট লাইভ ডেস্ক

সিলেটের ওঁরা সম্প্রদায়ের শুক্রবার দুপুরে জায়গা দখল করতে গেলে ওঁরা সম্প্রদায়ের ছেলে-মেয়েরা জায়গা দখলে বাধা দিলে দখলবাজ সন্ত্রাসীরা হামলা করে তাদের আহত করে। হামলায় ৬ জন আহত হয়েছেন।

এই হামলা ও ওঁরা সম্প্রদায়ের জায়গা দখল চেষ্টার নিন্দা জানিয়েছে সিলেটের প্রগতিশীল রাজনৈতিক দলসমূহ, পেশাজীবী, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) গণমাধ্যমে দেয়া এক বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, বাংলাদেশের অপরাপর ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মত সিলেটের ওঁরাও সম্প্রদায়ও একটি নিরীহ ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী।

সিলেট মহানগরীর বালুচর এলাকায় তাদের আদি নিবাস। প্রকৃতির সন্তান এই নিরীহ নৃ-গোষ্ঠী তাদের নিজস্ব সংস্কৃতি ও নৃ-তাত্বিক বৈশিষ্ট্যকে ধারণ করে শত শত বছর যাবৎ ঐ এলাকায় বসবাসরত আছে। গত শতাব্দীর আশির দশক থেকে ঐ এলাকায় বসবাসরত চিহ্নিত একটি ভূমিদস্যূ দুর্বৃত্তচক্র ওঁরাও সম্প্রদায়ের সমূহ সহায়-সম্পত্তি আত্মসাৎ করার লক্ষ্যে নানাবিধ কুকর্মের অপতৎপরতায় লিপ্ত হয়। ইতিমধ্যে বিপুল সংখ্যক ওঁরাও সম্প্রদায়ের পরিবার-পরিজন ও তাদের সমুদয় সহায় সম্পত্তি ও বসতভিটা থেকে অন্যায় ও নৃশংসতার মাধ্যমে সম্পূর্ণভাবে উচ্ছেদ করে দিয়েছে।

বর্তমানে ১৫/২০টি পরিবার অত্যন্ত বিপদজনক ও মানবেতর জীবনযাপনের মাধ্যমে সেখানে টিকে আছে। কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয়, চিহ্নিত ও ঘৃণিত ঐ ভূমিদস্যু দুর্বৃত্তচক্র এবং তাদের লেলিয়ে দেয়া গুন্ডাবাহিনী অতি সম্প্রতি ওঁরাও সম্প্রদায়ের অসহায় মানুষদের তাদের বসতভিটা থেকে সম্পূর্ণভাবে উচ্ছেদ করে দিতে মরিয়া হয়ে উঠেপড়ে লেগেছে। ওঁরাও সম্প্রদায়ের পরিবার সমূহের স্বত্ব দখলীয় সহায় সম্পত্তি, শ্মশান ও দেবালয় সহ ধর্মীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ভূমি ভয়-ভীতি প্রদর্শন, নানান ধরনের যোগাযোগী ও জাল দলিলাত সৃষ্টি করে তাদেরকে বলপূর্বক উচ্ছেদ করার ঘৃণ্য বর্বরোচিত হামলার চেষ্টা করছে । ইদানিং তাদের দুর্দমনীয় হিংস্র প্রচেষ্টা নিরীহ এ জনগোষ্ঠীকে মারাত্মকভাবে আতংকগ্রস্হ করে তুলেছে।

ভুক্তভোগী ওঁরাও সম্প্রদায়ের অসহায় মানুষদের পক্ষ থেকে সম্প্রতি সংশ্লিষ্ট শাহপরান(রঃ) থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। এছাড়া ও ঐ ভূমিদস্যু,সন্ত্রাসী, জালিয়াত চক্রের বিরুদ্ধে সিলেট জেলা জজ আদালতে চলমান রয়েছে একাধিক মামলা।
এতদসত্বেও ভূমিদস্যুগণ ও তাদের লেলিয়ে দেয়া গুন্ডা বাহিনী ওঁরাও সম্প্রদায়ের নেতা মিলন ওঁরাওকে সম্প্রতি অপহরণ করে এবং একদিন আটকে রেখে শারীরিক, মানসিক নির্যাতন করে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে ছেড়ে দেয়। এদের অসহনীয় কার্যক্রম দিন দিন বেড়েই চলেছে।

সিলেটের প্রগতিশীল রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সচেতন নাগরিক সমাজের পক্ষ থেকে বিগত এক যুগেরও অধিক সময় থেকে ওঁরাও সম্প্রদায়ের ন্যায়সংগত অধিকার প্রতিষ্ঠার আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ ও তাদের অস্তিত্ব রক্ষার আন্দোলন-সংগ্রামে সহযোগী হিসেবে নিজেদের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করে আসছে।

আমরা উক্ত ঘটনা সমূহের প্রেক্ষিতে সৃষ্ট ঘটনা প্রবাহে গভীর উদ্বেগ ও তীব্র নিন্দা প্রকাশ করছি। সময়ক্ষেপণ বা কালবিলম্ব না করে রাষ্ট্রের পক্ষে দায়িত্বশীল সংশ্লিষ্ট সকল কর্তৃপক্ষকে জরুরি ভিত্তিতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করে নিরীহ নৃ-গোষ্ঠী ওঁরাও সম্প্রদায়ের অসহায় মানুষদের রাষ্ট্রের সংবিধান স্বীকৃত অধিকার, ক্ষমতা ও তাদের অস্তিত্ব রক্ষার নূন্যতম ব্যবস্হা গ্রহণের জোর দাবি জানানো যাচ্ছে।

সাংবিধানিকভাবে স্বীকৃত রাষ্ট্রের সুনির্দিষ্ট আইনগত রক্ষাকবচ থাকা সত্ত্বেও সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীল কর্তৃপক্ষের নিষ্ক্রিয়তা বা ব্যর্থতার কারণেই ওঁরাও সম্প্রদায়ের সম্পত্তি ইতিপূর্বে বেদখল হয়েছে, উচ্ছেদ হয়েছে। রাষ্ট্রের এমনতর আইনবহির্ভূত ভূমিকায় দেশের সচেতন নাগরিক সমাজকে করেছে স্তম্ভিত। আমরা অবিলম্বে সিলেটের জেলা প্রশাসন সহ রাষ্ট্রের পক্ষে দায়িত্বশীল সকল কর্তৃপক্ষের জরুরি ভিত্তিতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানাচ্ছি। হতাশ ও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে প্রগতিশীল রাজনৈতিক, সামাজিক ও সচেতন নাগরিক সমাজের দায়িত্বশীল ব্যক্তিবর্গ, ভূমিদস্যু দুর্বৃত্তচক্র ও চিহ্নিত গুন্ডা মাস্তানদের অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে ওঁরাও সম্প্রদায়ের অসহায় মানুষদের জানমালের পরিপূর্ণ নিরাপত্তা বিধান নিশ্চিত করতে জরুরি ভিত্তিতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানান। ওঁরাও সম্প্রদায়ের জনগোষ্ঠীর সম্পত্তি পুনরুদ্ধার, রক্ষা ও ভূমিদস্যুুু দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার ও ওঁরাওদের জানমালের পরিপূর্ণ নিরাপত্তা বিধান নিশ্চিত করতে জোর দাবি জানান।

বিবৃতিদাতা নেতৃবৃন্দ হলেন,গণতন্ত্রী পার্টির কেন্দ্রীয় সভাপতি ব্যারিস্টার মোঃ আরশ আলী, সিলেট জেলা সিপিবির সাবেক সভাপতি এডভোকেট বেদানন্দ ভট্টাচার্য, সিলেট জেলা জাসদ সভাপতি লোকমান আহমদ, আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট এমাদ উল্ল্যাহ শহিদুল ইসলাম, সুজন সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরী, আইডিয়ার নির্বাহী প্রধান নজমুল হক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অম্বরিষ দত্ত, সাংবাদিক সংগ্রাম সিংহ,সাম্যবাদী দলের জেলা সাধারণ সম্পাদক ধীরেণ সিংহ, ন্যাপ ঐক্য সিলেট জেলা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবল চন্দ্র পাল,সিপিবি জেলা সভাপতি ফরহাদ হোসেন,গণতন্ত্রী পার্টি জেলা সভাপতি মোঃ আরিফ মিয়া,জাসদ মহানগর সভাপতি মিশফাক আহমদ মিশু, বাসদ (মার্ক্সবাদী) আহ্বায়ক উজ্জল রায়, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি সিকান্দর আলী,বাসদ সমন্বয়ক আবু জাফর, ওয়ার্কার্স পার্টি(মার্ক্সবাদী) জেলা সভাপতি সিরাজ আহমদ, ন্যাপ ঐক্য সাধারণ সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস বাবুল,গণতন্ত্রী পার্টি সাধারণ সম্পাদক জুনেদুর রহমান চৌধুরী, সাম্যবাদী আন্দোলনের সমন্বয়ক সুশান্ত সিনহা সুমন, জাসদ সাধারণ সম্পাদক কে. এ কিবরিয়া চৌধুরী, সিপিবি সাধারণ সম্পাদক খায়রুল হাসান, জাসদ মহানগর সাধারণ সম্পাদক গিয়াস আহমদ, ওয়র্কার্স পার্টি জেলা সাধারণ সম্পাদক ইন্দ্রানী সেন শম্পা, বাসদ (মার্ক্সবাদী) জেলা সদস্য এডভোকেট হুমায়ুন রশীদ শোয়েব, বাসদ জেলা সদস্য প্রণব জ্যোতি পাল, সাম্যবাদী আন্দোলনের এডভোকেট রণেন সরকার প্রমুখ।






© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বস্বত্ব SylhetLive24.Com কর্তৃক সংরক্ষিত ।

Design BY Web Nest BD
ThemesBazar-Jowfhowo